কফিতে সতেজ ত্বক উজ্জ্বল চুল

পানীয় হিসেবে কফির জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। এক চুমুকেই চাঙ্গা করে শরীর, মন দুটোই। এই কফিই সৌন্দর্যচর্চার উপাদান হিসেবে বেশ কাজের ও জনপ্রিয়। ত্বক ও চুলের পরিচর্যায় কফির জুড়ি মেলা ভার।

কফির যত গুণ

দিনভর বাইরে থাকার কারণে ত্বকে নানা রকম দূষণ দেখা দেয়। ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস কিংবা ছত্রাকের সংক্রমণও হতে পারে। এর কোনোটাই ক্ষতির কারণ হয়ে উঠবে না, যদি কফির সুরক্ষিত দেয়াল থাকে আপনার ত্বকে। রেড বিউটি পারলার অ্যান্ড স্যালনের রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভিন বলেন, ‘কফির মধ্যে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা ত্বকের স্তরে জমে থাকা ধুলোবালি পরিষ্কার করে ফেলে। সেই সঙ্গে এতে থাকা ক্যাফিক অ্যাসিড উপাদান ত্বকের বন্ধ হয়ে যাওয়া রোমকূপের মুখ খুলে দেয়, তার ফলে আপনার ত্বকটাও হয়ে উঠবে মসৃণ।’ কফি দিয়ে কীভাবে ত্বক ও চুলের পরিচর্যা নেবেন সেই বিষয়েই কিছু পরামর্শ দিয়েছেন আফরোজা পারভীন৷

 কফির তৈরি স্ক্র্যাব
পরিষ্কার বাটিতে কুসুম গরম পানি নিয়ে কফির কয়েকটি দানা ভিজিয়ে রাখুন। সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে নিন। এবার একটি ছাঁকনির সাহায্যে কফি তুলে নিন। এখন এই কফির দানাগুলো আলতোভাবে ত্বকে ম্যাসাজ করুন। পাঁচ মিনিট পর কফি ভেজানো পানি দিয়েই মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন ব্যবহার করতে পারেন এই স্ক্র্যাব। আর ফলাফল দেখতে পাবেন দুই সপ্তাহের মধ্যেই।
মাস্ক
আধা কাপ কফির সঙ্গে আধা কাপ কোকো পাউডার মিশিয়ে নিন। তাতে ১ কাপ দুধ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস ও মধু নিন। মধু এখানে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করবে। আর লেবুর রস ও দুধ আপনার ত্বক উজ্জ্বল করে তুলবে। পরিষ্কার ত্বকে মিশ্রণটি লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিন। শুকিয়ে আসলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার করুন এই মাস্ক।
ফুট স্ক্র্যাব
অনেকেরই পায়ের পাতা শক্ত হয়ে রুক্ষ হয়ে যায়। এ জন্য কফির তৈরি ফুট স্ক্র্যাব ব্যবহার করুন। কেননা কফির মধ্যে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে, যা রুক্ষতা কমিয়ে আনে। ১ কাপ নারিকেল তেল, আধা কাপ কফিগুঁড়া এবং ২ চা চামচ ভ্যানিলা অ্যাসেন্স একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এরপর শ্যাম্পুযুক্ত গরম পানিতে পা পরিষ্কার করার পর মিশ্রণটি ম্যাসেজ করুন। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে।
চুলের যত্নে

চুলের ঔজ্জ্বল্য বাড়িয়ে তুলতে কফির পেস্ট লাগাতে পারেন। এই পেস্ট তৈরি করতে দরকার হবে কফিগুঁড়া এবং পরিমাণমতো পানি। এবার চুলে শ্যাম্পু করার পর পানি দিয়ে কফি পেস্ট করে নিয়ে চুলে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। চুলকে উজ্জ্বল করার পাশাপাশি এটি চুলের রঙে গভীরতা নিয়ে আসবে। এ ছাড়া চুলে কন্ডিশনারের সঙ্গে ১ বা ২ চামচ কফিগুঁড়া মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

চোখের নিচে কালো দাগ

 সকালবেলা ১ কাপ কফি কেবল মস্তিষ্ক নয়, চোখ দুটিকেও জাগাতে সাহায্য করে। পান করার পর কফির দানাগুলো ফেলে না দিয়ে ঠান্ডা করে চোখের চারপাশে লাগিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

এ ছাড়া ত্বকের বাড়তি মেদ কমানো, খুশকি রোধ, চুলের গোড়া শক্ত করে তোলা, রোদে পোড়া দাগ কমাতে এবং ত্বক উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে কফির কথাই চলে আসে।এবার তাহলে শুধু পানীয় হিসেবে কফি নয়, ব্যবহার করুন নিজের যত্নে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Like Box

SuperWebTricks Loading...